সদ্য সংবাদ
Home / দেশ ও দশ / সালমানের সঙ্গে ভাইবোন টাইপের সম্পর্ক ছিল: শাবনূর

সালমানের সঙ্গে ভাইবোন টাইপের সম্পর্ক ছিল: শাবনূর

সালমান শাহ’র মৃত্যুর প্রায় দুই যুগ পর পিবিআইয়ের প্রতিবেদনে এসেছে শাবনূরের নাম। এ নিয়ে আবারও তর্ক-বিতর্ক।

পিবিআই রিপোর্টের পর আপনাকে নিয়ে আলোচনা চলছেই। পিবিআই রিপোর্ট সম্পর্কে আপনার মন্তব্য কি?

আমি এই সবের কোনো কিছুই জানি না। কোনো কিছুর সঙ্গেই জড়িত না। আমি আসলে একেবারেই থার্ড পারসন। আমি এসবের কিছুই জানি না।

সামিরা বলেছেন, সালমান শাহ ঘোষণা দিয়েছিলেন, তিনি আর আপনার সঙ্গে সিনেমা করবেন না?

আমি আসলে বুঝতে পারছি না কী ঘটছে, কেন ঘটছে। সালমান তো মারা যাওয়ার আগেও আমার সঙ্গে সিনেমা করেছে। এমন কোনো ঘোষণা দিলে তো আমার কানে আসতো। আমাকেই বলতো যে আর তোমার সঙ্গে ছবি করতে পারছি না। সে রকম তো কিছু বলেনি কখনও। আন্টিও (সালমানের মা) তো কিছু বলেনি। সামিরা কেন বলছে, আমি জানি না।

আমাকে শুধু শুধু দোষারোপ করা হচ্ছে কেন? সামিরা মানুষের থেকে নানা কথা শুনে হয়ত এসব বলছে। কানকথা শুনে কারো উপর দায় চাপানো ঠিক না। সামিরার উচিত, চিলের পেছনে দৌড়ানোর আগে নিজের কানে হাত দিয়ে দেখা।

সালমান সংবাদ সম্মেলন করে কিছু বললে তো সাংবাদিকরা জানতেন। এরকমতো কিছু ঘটেনি। আর আমিতো এমন কিছু করিনি সালমানের সঙ্গে যে সে আমার সঙ্গে ছবি করবে না।

পিবিআই রিপোর্ট আপনার পারিবারিক জীবনে কোনো নেতিবাচক প্রভাব ফেলেছে কি না?

না। কারণ আমিতো অসৎ না, আমিতো সৎ। আমার কথা হলো এতোবার ইনভেস্টিগেশন হয়েছে, এতো বছরে তো এসব কথা উঠেনি। এখন আবার হঠাৎ করে কি হলো যে নতুন করে আমাকে জড়ানো হচ্ছে?

সালমানের মা ও তো আছেন। তিনি মা। এরকম কিছু হলে তো তিনি আগে জানতেন। তিনি তো বারবার বলছেন যে, আমার সঙ্গে সালমানের একটা অন্যরকম ভাইবোন টাইপের সম্পর্ক ছিল।

সালমান আমার কো-আর্টিস্ট ছিল, ভাইবোনের মতো সম্পর্ক ছিল। সামিরাও জানতো।

সামিরা বলেছেন, আপনি প্রায়ই তাদের বাসায় যেতেন। কেন যেতেন?

তারাও আসতো, আমরাও যেতাম। একজন আরেকজনের বাসায় যাওয়া, এটা তো সাধারণ ব্যাপার। তার মানে এই না যে ঐ রাতে আমি তাদের বাসায় গিয়েছি। যাওয়ার প্রশ্নই উঠে না।

সামিরা যদি কোনো কারণ ছাড়া দায় চাপাতে চায়, আমি ভাববো নিজের গা বাঁচানোর জন্য… নিজেরা ভালো থাকার জন্য আরেকজন নিরীহ মানুষকে দোষী করার চেষ্টা করছে। এটা করা ঠিক না, করে কোনো লাভ নেই।

সালমান শাহ’র যদি আসলে আমার সঙ্গে কোনো সম্পর্ক থাকতো তাহলে তো তিনি বেঁচে থাকতেন। সালমান শাহকে মরতে দিতাম না। ক্ষতি তো আমারই হয়েছে। সালমান শাহ মারা যাওয়ায় সবদিক দিয়ে আমার ক্ষতি হয়েছে। আমার কতো ছবি বন্ধ হয়ে গেছে, আমার অনেক ছবি সাইন করা ছিলো সেগুলো বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। তাছাড়া বিবাহিত সালমানের সঙ্গে জেনে-শুনে কেনোই বা সম্পর্ক করতে যাবো?

About bdlawnews

Check Also

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য রক্ষা করা সকল নাগরিকের দায়িত্ব : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য বাংলাদেশের সম্পদ। এ ভাস্কর্য রক্ষা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Powered by themekiller.com