Home / আইন আদালত / ভল্টের টাকা চুরি করা সেই কর্মকর্তার রিমান্ড চায় দুদক

ভল্টের টাকা চুরি করা সেই কর্মকর্তার রিমান্ড চায় দুদক

প্রিমিয়ার ব্যাংক লিমিটেডের রাজশাহী শাখার ভল্ট থেকে ৩ কোটি ৪৫ লাখ টাকা চুরি করা কর্মকর্তা এফএম শামসুল ইসলাম ফয়সালকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতে ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

আগামী ১ মার্চ রিমান্ড আবেদনের শুনানির দিন ধার্য করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) সকালে দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক জাহাঙ্গীর আলম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, গত ২০ জানুয়ারি প্রিমিয়ার ব্যাংকের পক্ষ থেকে বোয়ালিয়া থানায় ব্যাংকের ম্যানেজার সেলিম রেজা খান শামসুল ইসলাম ফয়সালের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। পরে ১২ ফেব্রুয়ারি ফয়সালের বিরুদ্ধে দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয়েও মামলা দায়ের করা হয়। ওই দিনই আদালতে তার ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়।

দুদক কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ‘প্রথম দফায় পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদে আসামি ফয়সাল টাকা সরানোর কথা স্বীকার করেছেন। আদালতেও ৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন। তবে টাকাগুলো ব্যয় করার খাতগুলো আরও স্পষ্ট হওয়া জরুরি। এজন্য আমরা তাকে ৭ দিনের রিমান্ডে চেয়ে আবেদন করেছি।’

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, গত ২৩ জানুয়ারি ব্যাংকের শাখা ব্যবস্থাপক সেলিম রেজা খান হিসাব ক্লোজ করার সময় দেখেন ভল্টে তিন কোটি ৪৫ লাখ টাকা কম। তাৎক্ষণিকভাবে তিনি ক্যাশ ইনচার্জ ফয়সালের কাছে জানতে চাইলে তিনি তখন জানান, পারটেক্স গ্রুপের সুবর্ণভূমি হাউজিং প্রকল্পের জমি নিজের নামে কিনতে এক কোটি টাকা দিয়েছেন।

এছাড়া বিভিন্ন সময় বন্ধু সামাউনকে ১ কোটি ৪৫ লাখ এবং আরেক বন্ধু প্রবীরকে ১ কোটি টাকা ধার দিয়েছেন। তবে পরবর্তীতে রিমান্ডে পুলিশকে তিনি জানান, আইপিএল, বিপিএল ঘিরে অনলাইনে জুয়া খেলে টাকা ব্যয় করেছেন। ফলে টাকা ব্যয়ের খাত নিয়ে ধোঁয়াশার সৃষ্টি হয়।

গ্রেফতার ফয়সাল প্রিমিয়ার ব্যাংকের রাজশাহী শাখার সিনিয়র অফিসার (ক্যাশ ইনচার্জ)। তার বাবার নাম একেএম নজরুল ইসলাম। ঘটনার পর তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। থানায় মামলা হওয়ার আগেই ব্যাংক কর্তৃপক্ষ তাকে পুলিশের হাতে তুলে দেয়।

About bdlawnews

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!

Powered by themekiller.com