সদ্য সংবাদ
Home / অর্থনীতি / বগুড়ায় আওয়ামী লীগ, রূপগঞ্জে ছাত্রদল কেটে দিল কৃষকের ধান

বগুড়ায় আওয়ামী লীগ, রূপগঞ্জে ছাত্রদল কেটে দিল কৃষকের ধান

বগুড়ার দুটি উপজেলায় স্বেচ্ছাশ্রমে ধান কেটে দিল জনপ্রতিনিধি, আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। আজ বৃহস্পতিবার সোনাতলা উপজেলায় এবং নন্দীগ্রাম উপজেলায় কয়েকজন কৃষকের ধান কেটে ঘরে পৌঁছে দেন তারা।

আজ সকালে স্বেচ্ছাশ্রমের ভিত্তিতে নন্দীগ্রাম সদর ইউনিয়নের ইউসুবপুর এলাকায় কৃষকের ধান কেটে বাড়িতে পৌঁছে দিয়েছেন নন্দীগ্রাম উপজেলা ও পৌর ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। প্রধানমন্ত্রী ও কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নির্দেশনায় এ কর্মসূচি নেয়া হয়েছে বলে তারা জানান।

ইউসুবপুর গ্রামের কৃষক মিন্টু মিয়া বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে ধান কাটার জন্য কোনো শ্রমিক পাচ্ছিলাম না। এনিয়ে খুবই দুশ্চিন্তায় ছিলাম। এই ছাত্রলীগের ভাইয়েরা কষ্ট করে আমার জমির ধান কেটে বাড়ি পৌঁছে দিয়েছেন।

এদিকে সোনাতলা উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, বগুড়ার সোনাতলা একটি পৌরসভা ও সাতটি ইউনিয়নে ১০ হাজার ৫৮৫ হেক্টর জমিতে এবার ইরি-বোরো ধান চাষ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার আনুষ্ঠানিকভাবে ওই উপজেলায় ইরি-বোরো ধান কাটা শুরু হয়েছে। এর মধ্যে উপজেলার বালুয়া ইউনিয়নের রশিদপুর ও গোবরচাপা বিলে স্বেচ্ছাশ্রমে জনপ্রতিনিধি, আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা কৃষকের ধান কাটতে সহায়তা করে। স্বেচ্ছাশ্রমে ধান কাটতে অংশ নেন উপজেলা চেয়ারম্যান মিনহাদুজ্জামান লীটন, বালুয়া ইউপি চেয়ারম্যান প্রভাষক রুহুল আমিন, মধুপুর ইউপি চেয়ারম্যান অসীম কুমার জৈন নতুন, কৃষকলীগ নেতা নাহিদ হাসান, আওয়ামীলীগ নেতা মানিক সরকার, ছাত্রলীগ নেতা মাহমুদুল হাসান রতন সহ আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ ও কৃষকলীগ নেতা উপস্থিত ছিলেন। এ সময় উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মোঃ মতিয়ার রহমান ও শেখ রাসেল উপস্থিত ছিলেন।

অপরদিকে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে কৃষকদের ধান কেটে দিয়েছেন উপজেলা ছাত্রদল ও সেচ্ছাসেবক দলের নেতাকর্মীরা। আজ বৃহস্পতিবার থেকে উপজেলার কায়েতপাড়া ইউনিয়নের নগরপাড়া বিলের দুজন কৃষকের পাকা ধান কাটার মাধ্যমে এই কার্যক্রম শুরু করেছেন তারা।

ধান কাটতে আসা উপজেলা ছাত্রদল নেতা আবু মোহাম্মদ মাসুম বলেন, এটা আহামরি কোনো বিষয় নয়, আমরা আদর্শিক রাজনীতি আর শহিদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ভালোবাসার সোনার বাংলার ধানের শীষের প্রতি আন্তরিক ভালোবাসা থেকেই এটা করছি।

উপজেলা সেচ্ছাসেবক দল নেতা আলী হোসেন জানান, দলের নেতাকর্মীদের নিয়ে স্বেচ্ছাশ্রমে গরীব চাষিদের পাকা ধান কেটে দেওয়ার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এটি চলমান থাকবে।

জমি থেকে ধান কাটায় অংশগ্রহণ করেন, ছাত্রদল নেতা সুলতান মাহমুদ, শিপলু হোসেন, হীরা নাঈমসহ ৩০ জন সেচ্ছাসেবী।

কৃষক বিল্লাল হোসেন জানান, ধান কাটা নিয়ে খুব চিন্তায় ছিলাম। হঠাৎ ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা ধান কাটতে আসবে বিশ্বাসই হচ্ছিল না। যেখানে দ্বিগুণ পারিশ্রমিক দিয়ে শ্রমিক পাওয়া যাচ্ছিল না, সেখানে তারা শুধু পানি পান করানোর বিনিময় আমার দেড় বিঘা জমির ধান কেটে দিয়েছেন তারা। এছাড়া ধান বাসায় পৌঁছে দেয়া ও মাড়াই করারও প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

About bdlawnews

Check Also

পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস চক্রের ৭ সদস্য গ্রেফতার

বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি ও ব্যাংকের নিয়োগ পরীক্ষাসহ বিভিন্ন নিয়োগ পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁস চক্রের সাত সদস্যকে গ্রেফতার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Powered by themekiller.com