Home / আইন আদালত / ঘুড়ি ওড়ানো নিষিদ্ধ করল ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রশাসন

ঘুড়ি ওড়ানো নিষিদ্ধ করল ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রশাসন

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ঘুড়ি ওড়ানো নিষিদ্ধ করেছে জেলা প্রশাসন। এর আগে ঘুড়ির সুতায় গলায় জড়িয়ে বেশ কয়েকজন মোটরসাইকেল আরোহী আহত হয়েছেন।

সোমবার ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ডিসি হায়াত উদ-দৌলা খান স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত একটি গণবিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়।

এতে বলা হয়, ইদানীং ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরে ব্যাপক হারে ঘুড়ি ওড়ানোর প্রবণতা লক্ষ্য করা গেছে। ফলশ্রুতিতে ছিঁড়ে যাওয়া ঘুড়ির সুতা বিভিন্ন স্থানে পতিত হওয়ার কারণে চলাচলকারী লোকজনের আহত হওয়ার ঘটনা ঘটছে। এছাড়া ঈদ উপলক্ষে ঘুড়ি ওড়ানো প্রতিযোগিতা আয়োজন করা হচ্ছে বলেও শোনা যাচ্ছে। এ প্রতিযোগিতায় আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটতে পারে। তাই সব ধরনের ঘুড়ি ওড়ানো ও প্রতিযোগিতা নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

এদিকে ২ মে শহরের ফ্লাইওভারে ঘুড়ির সুতায় মুখ কেটে আহত হন শহরের মধ্যপাড়ার সাহিম নামে এক যুবক। স্থানীয়রা গুরুতর অবস্থায় তাকে শহরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে সার্জারির মাধ্যমে তার গাল-মুখে ২১৩টি সেলাই দেয়া হয়।

এছাড়া ১১ মে মোরসালিন আহমেদ নামে আরেক যুবক আহত হন। পরে ওই যুবক সদর হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা নেন। ১৫ মে শহরের রামকানাই মার্কেটের কম্পিউটার স্কুলের মালিক সোলেমান হোসেন শহরের ওভার ব্রিজে কেটে যাওয়া ঘুড়ির ধারালো সুতা গলায় জড়িয়ে গুরুতর আহত হন। বিষয়টি নিয়ে ফেসবুকে বিভিন্ন গ্রুপে লেখালেখি হয়।

এ ব্যাপারে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আহবায়ক আব্দুন নূর বলেন, জেলা প্রশাসন সময়োপযোগী সিদ্ধান্ত নিয়েছে। কারণ ঘুড়ির ধারালো সুতায় জড়িয়ে বেশ কয়েকজন আহত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। করোনার প্রভাবে জেলা লকডাউনের পর শিশু, কিশোরসহ বিভিন্ন বয়সী মানুষ অবসর সময় পার করার জন্যে ঝুঁকি নিয়ে বহুতল ভবনে ঘুড়ি উড়াচ্ছেন। এতে তাদেরও মৃত্যুর ঝুঁকি থেকে যায়।

About bdlawnews

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!

Powered by themekiller.com