সদ্য সংবাদ
Home / দেশ জুড়ে / প্রেমিকের বাড়িতে অনশনে ৩ সন্তানের মা

প্রেমিকের বাড়িতে অনশনে ৩ সন্তানের মা

ফরিদপুরের ভাঙ্গায় বিয়ের দাবীতে প্রেমিকের বাড়িতে অনশন করছেন ৩ সন্তানের জননী। এ ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার কাউলীবেড়া ইউনিয়নের পল্লীবেড়া গ্রামে।

গত দুই দিন যাবৎ ওই গ্রামের এলেম মাতুববরের মেয়ে মাকসুদা বেগম (৩৫) বিয়ের দাবী নিয়ে একই গ্রামের এমদাদুল মাতুববরের বাড়ির উঠানে মাদুর পেতে অনশন চালিয়ে যাচ্ছেন। আগে থেকেই বিবাহিত এমদাদুলেরও ৩ সন্তান রয়েছে।

এদিকে ঘটনার পর থেকে প্রেমিক এমদাদুল গা ঢাকা দিয়েছেন।

প্রেমিকা মাকসুদার ১৬ ও ১২ বছর বয়সী ২টি ছেলে ও ২ বছর বয়সী ১টি মেয়ে সন্তান রয়েছে। অপরদিকে এমদাদুলেরও ১৭ ও ১৩ বছর বয়সী দুটি ছেলে ও ৯ বছর বয়সী একটি মেয়ে রয়েছে।

মাকসুদা ও তার পরিবার জানায়, দীর্ঘদিন যাবৎ তার সাথে (এমদাদুল) প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছিল। এক পর্যায়ে তাকে বিয়ে করে স্ত্রীর মর্যাদা দিবে এমন প্রলোভনে তার সাথে এমদাদুল স্বামী-স্ত্রীর মত আচরণ করতে থাকে। গত এক বছর আগে তার স্বামী মারা যায়। এ সুযোগে তার মধ্যে ও প্রেমিক (এমদাদুলের) সাথে সম্পর্ক গভীর হয়ে উঠে এবং বিভিন্ন জায়গায় যোগাযোগের মাত্রা বেড়ে যায়। সম্প্রতি তাকে বিয়ের জন্য এমদাদুলকে চাপ প্রয়োগ করলে সে নানা ছলচাতুরী শুরু করে। এক পর্যায়ে প্রেমিক এমদাদুল তাদের মধ্যে গড়ে উঠা সম্পর্কের কথা অস্বীকার করে। তাই বাধ্য হয়ে এখানে এসে অনশন শুরু করেছি। দাবী মানা না পর্যন্ত অনশন চলবে।

বুধবার সকালে বাড়িতে গিয়ে দেখা যায় প্রেমিকা মাকসুদা বাড়ির মেঝেতে মাদুর পেতে বসে আছে। এলাকার শতশত উৎসুক লোক ভিড় করছে। বাড়ির বয়োজ্যেষ্ঠ আ. মোতালেব মাস্টার বলেন, প্রেমের দাবী নিয়ে মহিলাটি অনশন করছে।

বিষয়টিকে সামাজিকভাবে মীমাংসার চেষ্টা চলছে। তবে অভিযুক্ত এমদাদুল মাতুববরের স্ত্রী বলেন, পুরো বিষয়টি বেশ ভাবিয়ে তুলেছে। অভিযুক্ত এমদাদুলের ভাই ঘটনাটি স্বীকার করে বলেন, আমরা সামাজিকভাবে বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা করছি।

এদিকে কাউলীবেড়া ইউপি চেয়ারম্যান আবুল হাসনাত দুদু মিয়া জানান, বিষয়টি আমি খোঁজ নিয়েছি। দুই পক্ষই আমার কাছে অভিযোগ নিয়ে এসেছে। আমি দু,পক্ষের সম্মতিতে বিষয়টি সামাজিকভাবে সমাধানের চেষ্টা করছি।

About bdlawnews

Check Also

থার্টিফার্স্ট নাইট ঘিরে রাজধানীতে নিরাপত্তা জোরদার

ইংরেজি বছরের শেষ রাত থার্টিফার্স্ট নাইটকে কেন্দ্র করে অপ্রত্যাশিত বা অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়ানোর লক্ষ্যে রাজধানীতে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Powered by themekiller.com