সদ্য সংবাদ
Home / আইন আদালত / দেওয়ানি মামলা করা যাবে ভার্চুয়াল আদালতে

দেওয়ানি মামলা করা যাবে ভার্চুয়াল আদালতে

এবার স্বাস্থ্যবিধি মেনে নিম্ন আদালতে নতুন দেওয়ানি মামলা ও পুরাতন দেওয়ানি মামলায় আপিল দাখিল করার সিদ্ধান্ত দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। সংশ্লিষ্ট দেওয়ানি আদালতের সেরেস্তায় এসব নতুন মামলা ও আপিল দাখিল করতে হবে। সেক্ষেত্রে স্ব স্ব আদালত মামলা ও আপিল দাখিল বা গ্রহণের প্রয়োজনীয় পদ্ধতি নির্ধারণ করবেন। এছাড়া আগের মতোই ফৌজদারি মামলাও পরিচালিত হবে। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত সারাদেশে এভাবে চলবে ভার্চুয়াল দেওয়ানি ও ফৌজদারি আদালত। ভার্চুয়াল বেঞ্চে বিচার কাজে অংশ নিতে আগ্রহী আইনজীবীদের ‘প্র্যাকটিস নির্দেশনা’ অনুসরণ করতে হবে।

এবিষয়ে আজ বুধবার সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল মো. আলী আকবরের স্বাক্ষরে একটি বিজ্ঞপ্তি  জারি করা হয়েছে। এরআগে ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে ফৌজদারি মামলা এবং ডেক ডিজঅনার মামলা পরিচালনার বিষয়ে গত ১৫ জুন বিজ্ঞপ্তি জারি করেছিল সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন। এবার দেওয়ানি মামলঅ দাখিল ও আপিল দাখিল করার সুযোগ সৃস্টি করে নতুন বিজ্ঞপ্তি জারি করা হলো।

আজ জারি করা বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ‘প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন সুপ্রিম কোর্টের জ্যেষ্ঠ বিচারপতিগনের সাথে আলোচনাক্রমে এই মর্মে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছেন-স্বাস্থ্যসেবা বিভাগ কর্তৃক জারিকৃত স্বাস্থ্যবিধি এবং শারীরিক ও সামাজিক দূরত্ব কঠোরভাবে অনুসরণ করে অধস্তন দেওয়ানী আদালতের সংশ্লিষ্ট সেরেস্তায় মোকদ্দমা ও আপিল দায়ের করা যাবে। এ ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট দেওয়ানী আদালত সমূহ স্ব স্ব সেরেস্তায় শারীরিক ও সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করার জন্য মোকাদ্দমা ও আপিল দায়ের/গ্রহণের প্রয়োজনীয় পদ্ধতি নির্ধারণ করবেন। দেওয়ানি মোকাদ্দমা ও আপিল গ্রহণ করে সংশ্লিষ্ট আদালত দেওয়ানী কার্যবিধি অনুসরণ করে সমন জারি করবেন।’

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের প্রেক্ষাপটে ঘোষিত সাধারণ ছুটির কারণে নিয়মিত আদালত বন্ধ থাকায়  ভার্চুয়াল আদালত চালু করতে গত ৯ মে আদালতে তথ্য-প্রযুক্তি ব্যবহার অধ্যাদেশ, ২০২০ নামে গেজেট প্রকাশ করে। ভার্চুয়াল উপস্থিতিকে স্বশরীরে উপস্থিতি হিসেবে গণ্য করে আদালতকে মামলার বিচার, বিচারিক অনুসন্ধান, দরখাস্ত বা আপিল শুনানি, সাক্ষ্যগ্রহণ, যুক্তিতর্ক গ্রহণ, আদেশ বা রায় দেওয়ার ক্ষমতা দেওয়া হয়। এই অধ্যাদেশ জারি পর গত ১০ মে সুপ্রিম কোর্টসহ সারাদেশে ভার্চুয়াল আদালত চালুর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। ওইদিনই ভার্চুয়াল আদালত পরিচালনার জন্য আপিল বিভাগ, হাইকোর্ট বিভাগ এবং অধস্তন আদালত জন্য আলাদা আলাদা ‘প্র্যাকটিস নির্দেশনা’ এবং  আইনজীবীদের জন্য ‘ভার্চুয়াল কোর্টরুম ম্যানুয়াল’ প্রকাশ করা হয়। এরপর এই নির্দেশনা মেনেই ১১ মে থেকে আইনজীবীরা আবেদন করছেন এবং আদালতে বিচার কার্যক্রম চলছে।

About bdlawnews

Check Also

নওগাঁয় কোর্ট চত্বরে পুলিশ কর্তৃক আইনজীবিকে মারধ‌রের ঘটনায় বারের আল্টি‌মেটাম

ন‌বিবুর রহমান নওগাঁ ঃ নওগাঁয় পুলিশ কর্তৃক এক আইনজীবি মারাত্মক ভাবে প্রহৃত হওয়ার ঘটনায় তাৎক্ষনিক …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Powered by themekiller.com