Home / আইন আদালত / প্রতারণার অভিযোগে ৩ নারীসহ গ্রেপ্তার ৭

প্রতারণার অভিযোগে ৩ নারীসহ গ্রেপ্তার ৭

পত্রিকায় লোভনীয় বেতনে চাকরির চটকদার বিজ্ঞাপন দিয়ে প্রতারণার অভিযোগে ঢাকার একটি প্রতিষ্ঠান থেকে ৩ নারীসহ ৭ প্রতারককে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। বৃহস্পতিবার বিকেলে ঢাকার কদমতলী থানার ধনিয়ায় অবস্থিত ইভারওয়ে সিকিউরিটি নামে একটি প্রতিষ্ঠানে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করে র‌্যাব-১১’র একটি টিম।

গ্রেপ্তাররা হলেন- মো. মোসলেম উদ্দিন ওরফে রানা, মো. ইসমাইল, মো. জালাল উদ্দিন, মো. শরিফ হোসেন, শবনম আক্তার, সুমাইয়া আক্তার রিভা ও বিথী আক্তার। তাদের কাছ থেকে প্রতারণার কাজে ব্যবহৃত একটি কম্পিউটার, একটি মোবাইল, ৫টি অফিসের সিল, ২০টি চাকরির আবেদনপত্র, বিপুল পরিমাণ ভুয়া চাকরির বিজ্ঞাপন, ভুক্তভোগীদের কাছ থেকে অর্থ আদায়ের রশিদ, চাকরি প্রার্থীদের নিবন্ধন ফরম ও নগদ অর্থ জব্দ করা হয়। এ সময় চাকরিপ্রত্যাশী ৬০ ভুক্তভোগীকে ওই অফিস থেকে উদ্ধার করা হয়।

বৃহস্পতিবার রাতে র‌্যাব-১১’র অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জসিম উদ্দিন চৌধুরী স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গ্রেফতারদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা গেছে, এই সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্র দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন কোম্পানির নামে পত্রিকা, লিফলেট ও অনলাইনে লোভনীয় বেতনে চাকরির বিজ্ঞাপন দিয়ে চাকরিপ্রত্যাশীদের সঙ্গে প্রতারণা করে আসছে। তাছাড়া চাকরির আবেদন ফরম, প্রশিক্ষণ ও ভালো পদের প্রলোভন দেখিয়ে তাদের কাছ থেকে প্রচুর নগদ অর্থ আত্মসাত করে আসছে। এই প্রতারক চক্রের মূলহোতা মোসলেম উদ্দিন রানা। তিনি বিভিন্ন কোম্পানিতে বিভিন্ন পদে লোক নিয়োগের জন্য ফেসবুক, অনলাইন ও লিফলেটের মাধ্যমে ভুয়া বিজ্ঞাপন দিয়ে প্রত্যেক চাকরিপ্রত্যাশীদের কাছ থেকে আবেদন ফি বাবদ ৫০০ টাকা ও প্রশিক্ষণ ফি বাবদ ৭ থেকে ৯ হাজার টাকা করে হাতিয়ে নিতেন। কোম্পানির অফিস এক্সিকিউটিভ অফিসার, কাস্টমার সাপ্লাই অফিসার, কাস্টমার রিলেশন অফিসার, মার্কেটিং ম্যানেজার, টেলি মাকেটিং অফিসার, রিক্রুটিং অফিসার প্রভৃতি পদে ১৫ থেকে ৩০ হাজার টাকা পর্যন্ত বেতনের প্রলোভন দেখিয়ে চাকরিপ্রত্যাশীদের প্রলুব্ধ করতেন। চাকরি পাওয়ার পর মাসের পর মাস অফিসে আসা যাওয়া করে বেতন না পেয়ে প্রতারণার বিষয়টি বুঝতে পেরে অনেকে টাকা ফেরত চাইলে তাদের ভয়-ভীতি দেখানো ও হুমকি দেওয়া হতো। এমনকি মারধরও করতেন।

তাদের জিজ্ঞাসাবাদে আরোও জানা যায়, তারা দীর্ঘদিন ধরে ইভারওয়ে সিকিউরিটি প্রাইভেট লিঃ নাম ব্যবহার করে প্রতারণার মাধ্যমে লাখ লাখ টাকা আত্মসাত করে আসছিলেন। বেশ কয়েকজন ভুক্তভোগীর অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে র‌্যাব অনুসন্ধান চালিয়ে ঘটনার সত্যতা পেয়ে বৃহস্পতিবার বিকেলে বিশেষ আভিযান চালিয়ে প্রতারক চক্রের ৭ জনকে গ্রেপ্তার করে। তাদের বিরুদ্ধে ঢাকার কদমতলী থানায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

About bdlawnews

Check Also

খুলনায় মাদক বিরোধী অভিযানে গ্রেফতার ৩ জন।

ডেক্স নিউজঃ খুলনায় মাদক বিরোধী অভিযান কার্যক্রমের অংশ হিসেবে মহানগর ও জেলায় মাদক বিরোধী পৃথক …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Powered by themekiller.com