সদ্য সংবাদ
Home / আইন আদালত / কলেজছাত্রের মৃত্যুতে সাতজনের বিরুদ্ধে মামলা

কলেজছাত্রের মৃত্যুতে সাতজনের বিরুদ্ধে মামলা

ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গায় কলেজছাত্রের মৃত্যুতে উপজেলার বানা ইউনিয়নের কৃষকলীগ সভাপতি শরীফ হারুন অর রশীদসহ সাতজনের নাম উল্লেখ করে একটি হত্যা মামলা করা হয়েছে । রবিবার রাতে নিহত ওই ছাত্রের চাচা উপজেলার বানা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম এ মামলাটি করেন।

পুলিশ এ মামলার তিন আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে। গ্রেপ্তাররা হলেন- নজরুল শরীফ, সবুজ শরীফ ও মারিয়া খানম। সোমবার দুপুরে জেলার মুখ্য বিচারিক হাকিমের আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

প্রসঙ্গ, ১৫ আগস্ট বেলা ১১টার দিকে উপজেলার বানা ইউনিয়নের কৃষকলীগের সভাপতি শরীফ হারুন-অর-রশীদের বাড়ির নিচ তলার একটি কক্ষ থেকে ঘরের সিলিং ফ্যানের সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় প্রতিবেশী আশিক রানা (১৭) নামে এক কলেজছাত্রের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

আশিক রানা বানা ইউনিয়নের কুঠরাকান্দি গ্রামের সৌদি প্রাবাসী আলমগীর শেখের বড় ছেলে। তিনি ফরিদপুর মুসলিম মিশন কলেজের একাদশ শ্রেণির দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ছিলেন।

এলাকাবাসী বলছে, আশিকের শরীফ হারুন-অর-রশীদের স্কুল পড়ুয়া এক মেয়ের সাথে প্রেমের সম্পর্ক ছিল।

নিহত আশিক রানার চাচা বানা ইউনিয়ন আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গির আলম বলেন, শরীফ হারুন-অর-রশীদ আমাকে রাত একটার পরে ফোন দিয়ে বলে- তোমার ভাতিজা আমার বাড়িতে আছে, তোমরা গিয়ে নিয়ে আসো। এ খবর পেয়ে আমি ও আমার ছোট ভাই গিয়ে তাদের বাড়ির মূল ফটক তালাবদ্ধ দেখে প্রতিবেশী নওশের শেখ ও ওবাইদুল মোল্লা তাদের বাড়িতে পাঠাই। তারা বাড়ির পেছন দিয়ে প্রবেশ করে বিল্ডিংয়ের নিচ তলায় একটি রুমে ফ্যানের সাথে গলায় গামছা পেঁচানো লাশ ঝুলতে দেখে আমাদের খরব দেয়। আমরা এ ঘটনা তৎক্ষণিক পুলিশকে জানাই।

জাহাঙ্গীর আলম বলেন, এটা একটি পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড। হারুন শরীফের মেয়ের সাথে আমার ভাতিজার প্রেমের সম্পর্ক ছিল। এ সম্পর্কের কারণেই হত্যার ঘটনা ঘটেছে।

তিনি বলেন, হারুন-অর-রশীদের পরিবারের সদস্যরা আমার ভাতিজা আশিক রানাকে হত্যা করে লাশ ঝুলিয়ে রেখেছে।

এলাকাবাসী জানায়, কঠুরাকান্দি গ্রামে গ্রাম্য দলাদলি রয়েছে। এ দলাদলিতে এই দুই পরিবারের লোকজন দুটি পক্ষের নেতৃত্বে দেয়। দুই পরিবারে মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে আলফাডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল করিম বলেন, নিহতের ময়নাতদন্ত করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পাওয়ার পর জানা যাবে- এটি হত্যা না আত্মহত্যা।

About bdlawnews

Check Also

চিকিৎসকের পরিচয়পত্র দেখা নিয়ে সেই নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বদলি

ঢাকা জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শেখ মো. মামুনুর রশীদকে বরিশাল বিভাগে বদলি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!

Powered by themekiller.com