সদ্য সংবাদ
Home / আইন আদালত / দুটি এনআইডি নেওয়ায় ইসির মামলায় ডা. সাবরিনার বিরুদ্ধে প্রতিবেদন ১ অক্টোবর

দুটি এনআইডি নেওয়ায় ইসির মামলায় ডা. সাবরিনার বিরুদ্ধে প্রতিবেদন ১ অক্টোবর

তথ্য গোপন ও জালিয়াতির মাধ্যমে দুটি জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) নেওয়ার অভিযোগে জেকেজি হেলথকেয়ারের চেয়ারম্যান ডা. সাবরিনার বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের তারিখ আগামি ১ অক্টোবর ধার্য করেছেন আদালত।

সোমবার (৩১ আগস্ট) মামলার এজাহার আদালতে আসে। এরপর ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট রাজেশ চৌধুরী এজাহার গ্রহণ করেন। বাড্ডা থানার এসআই মইনুল ইসলামকে মামলাটি তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন আদালত।

এর আগে ৩০ আগস্ট রাতে বাড্ডা থানায় এ মামলা করেন গুলশান থানার নির্বাচন কর্মকর্তা মমিন মিয়া।

বাড্ডা থানার ওসি পারভেজ ইসলাম মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, জাতীয় পরিচয়পত্র নিবন্ধন আইন ২০১০-এর ১৪ ও ১৫ ধারা অনুযায়ী তথ্য গোপন ও জালিয়াতির অভিযোগে সাবরিনার বিরুদ্ধে মামলাটি করা হয়েছে।

তথ্য গোপন ও জালিয়াতির মাধ্যমে জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) নেওয়ার অভিযোগে ডা. সাবরিনার দুটি এনআইডি’ই ‘ব্লক’ করে দেওয়া হয়। পাশাপাশি ঘটনা তদন্তে ছয় সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, ডা. সাবরিনা চৌধুরী মিথ্যা তথ্য দিয়ে নিজের নামে দু’টি এনআইডি নিয়েছেন বলে উঠে আসে ‍দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) অনুসন্ধানে। এর মধ্যে তিনি দ্বিতীয় এনআইডি নিয়েছেন ২০১৬ সালের ভোটার তালিকা হালনাগাদের সময়। দু’টি এনআইডিতে নিজের নাম এক হলেও মা-বাবা ও স্বামীর নামে ভিন্নতা রয়েছে। দুই এনআইডি’র ঠিকানাও আলাদা। দু’টি এনআইডিতে তার বয়সের পার্থক্য রয়েছে প্রায় পাঁচ বছর। দুদক বিষয়টি জানতে পেরে বিস্তারিত জানতে চেয়ে চিঠি দেয় ইসি’কে।

About bdlawnews

Check Also

আবরার হত্যা মামলায় বুয়েট শিক্ষকসহ দুজনের সাক্ষ্য

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যা মামলায় কম্পিউটার সায়েন্স ইঞ্জিনিয়ারিং (সিএসই) বিভাগের সহকারী …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Powered by themekiller.com