Home / অনিয়ম / বগুড়ায় আ’লীগ নেতা ও জেলা পরিষদ সদস্য রানাসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে শতকোটি টাকার মামলা

বগুড়ায় আ’লীগ নেতা ও জেলা পরিষদ সদস্য রানাসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে শতকোটি টাকার মামলা

স্টাফ রিপোর্টার ঃ বগুড়া জেলা পরিষদ সদস্য ও নন্দীগ্রাম উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতা আনোয়ার হোসেন রানাসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে শাশুড়ির শতকোটি টাকা আত্মসাত ঘটনায় অবশেষে গত সোমবার বগুড়া সদর থানায় মামলা রেকর্ড করা হয়েছে। বগুড়া সদর থানায় মামলা নং ১৬ তারিখ ৫/১০/২০২০ইং ধারাঃ ৪০৬/৪২০/৩৮৬/৩৮০/৪৬৮/৪৭১/৫০৬/৩৪ প্যানেল কোড ১৮৬০ সূত্রে জানা গেছে।

বগুড়া সদরের কাটনারপাড়ার বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মরহুম শেখ শরীফ উদ্দিনের স্ত্রী দেলওয়ারা বেগম গত সোমবার সদর থানায় মরহুম আলহাজ্ব শরিফ উদ্দিনের স্ত্রী দেলওয়ারা বেগম তার জামাই নন্দীগ্রাম উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা ও জেলা পরিষদ সদস্য আনোয়ার হোসেন রানা ও তার স্ত্রী আকিলা শরীফা সুলতানা খানম আঞ্জুয়ারা, সরিফ বিড়ি ফ্যাক্টরী, সরিফ সিএনজি লিমিটেড ও দেলওয়ারা সরিফ উদ্দিন সুপার মার্কেট লিমিটেড এর ৩ ম্যানেজার যথাক্রমে নজরুল ইসলাম, হাফিজার রহমান ও তৌহিদুল ইসলাম এর বিরুদ্ধে শতকোটি টাকা আত্মসাতের ঘটনায় মামলা দায়ের করেন।

এ ব্যাপারে বগুড়া সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ হুমায়ুন কবীরের সাথে কথা বললে তিনি বি‌ডি ল নিউজ24 ডটকম প্রতিবেদককে থানায় মামলা রেকর্ডের বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি আরো বরেন, আসামী রানাকে গ্রেফতারের অভিযান চলছে। এর আগে গত ১ অক্টোবর সদর থানায় অভিযুক্ত আনোয়ার হোসেন রানা সহ ৫ জনের বিরুদ্ধে শতকোটি টাকা আত্মসাতের ঘটনায় লিখিত অভিযোগ দেন দেলওয়ারা বেগম। লিখিত অভিযোগ পেয়ে থানা পুলিশ ব্যাপক তদন্ত পূর্বক মামলাটি রেকর্ড করেন।

মামলার এজাহারে বাদী দেলওয়ারা বেগম উল্লেখ করেছেন, তার নিজ নামীয় ব্যাংক হিসাবে বর্ধিত এফডিয়ার ভাঙ্গিয়া ৫০ কোটি টাকা এবং আমার স্বামীর সরিফ বিড়ি ফ্যাক্টরী, সরিফ সিএনজি লিমিটেড, দেলওয়ারা শেখ সরিফ উদ্দিন সুপার মার্কেট সহ অন্যান্য ব্যবসা প্রতিষ্ঠান হতে আরো ৫০ কোটি টাকা মোট ১ শত কোটি টাকা আত্মসাত করেন।

তিনি অভিযোগে আরও উল্লেখ্য করেন, আমার নিকট হতে আনোয়ার হোসেন (রানা) জোরপূর্বক কাগজপত্র ও চেকে সহি করে নেয়ার পর তার কাছে থাকা লাইসেন্সকৃত অস্ত্র বের করে প্রায়ই আমাকে হুমকি দিতো যে, এ সব ঘটনা আপনি কাউকে বলবেন না, যদি বলেন তাহলে প্রয়োজনে আপনাকে খুন করা হবে। সেই কারণে আমি প্রাণভয়ে প্রাথমিক পর্যায়ে কাউকে বলার সাহস পাইনি। এ ঘটনায় আনোয়ার হোসেন রানা মোবাইল বন্ধ রেখে গা ঢাকা দেয়ায় তার বক্তব্য নেয়া যায়নি।

About bdlawnews

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!

Powered by themekiller.com