Home / রাজনীতি / বিদেশিদের জন্য ক্যাসিনা চালু হলেও ধ্বংস হবে দেশের মানুষ: মঈন খান

বিদেশিদের জন্য ক্যাসিনা চালু হলেও ধ্বংস হবে দেশের মানুষ: মঈন খান

দেশের পযর্টন এলাকায় ক্যাসিনোর অনুমতি দেওয়া হবে অনৈতিক এমন মন্তব্য করে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খান বলেছেন, সরকার একটি নতুন নীতি গ্রহণ করেছে- বাংলাদেশে বিদেশিদের জন্য ক্যাসিনো চালু করবে। এটা করলে দেশের মানুষ ধ্বংস হবে।

তিনি বলেন, যে ঘটনা নিয়ে গত এক সপ্তাহ ধরে বাংলাদেশে তোলপাড় শুরু হয়েছে, সেখানে সরকার কীভাবে বিদেশিদের জন্য ক্যাসিনো করার ঘোষণা করে?

বুধবার (২৫ সেপ্টেম্বর) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এক মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দল এ মানববন্ধনের আয়োজন করে।

মঈন খান বলেন, এদেশের জনগণ যদি পাপ করে আর সেটা যদি পাপ বলে গণ্য হয়, তাহলে বিদেশিরা এদেশে এসে যদি পাপ করে তাহলে সেটা পাপ হবে না? আমি দোষ করলে দোষ আর বিদেশিরা দোষ করলে দোষ নয় কেন? আর যদি বিদেশিরা দোষ করলে দোষ হয়, তাহলে বিদেশিদের জন্য এদেশে কেন ক্যাসিনো চালু করা হবে?

ক্যাসিনোর সমালোচনা করে তিনি আরও বলেন, বিদেশিদের জন্য ক্যাসিনো চালু করা হলে সেই ক্যাসিনোতে আমার দেশের জনগণ যে জড়াবে না তার নিশ্চয়তা কে দেবে? বিদেশিরা আমার দেশের জনগণের চরিত্র যে হরণ করবে না তার নিশ্চয়তা কে দেবে?

বিএনপি একটি গণতন্ত্রিক রাজনৈতিক দল আখ্যায়িত করে মঈন খান বলেন, গণতন্ত্রকে আমরা বিশ্বাস করি। এজন্য একটি মিথ্যা মামলায় খালেদা জিয়াকে বন্দী করে রাখা সত্ত্বেও নিয়মতান্ত্রিক ও শান্তিপূর্ণভাবে আন্দোলন করে যাচ্ছি। আজকে আমরা শপথ নিয়েছি, খালেদা জিয়াকে মুক্ত না করে আমরা ঘরে ফিরব না।

আওয়ামী লীগের সমালোচনা করে তিনি বলেন, রাজনীতিবিদরা মানুষের জন্য রাজনীতি করে। নিজেদের জন্য রাজনীতি করে না। কিন্তু আওয়ামী লীগ সেটা করতে ব্যর্থ হয়েছে। তাদের বিভিন্ন নেতার বাসা থেকে কোটি কোটি টাকা উদ্ধারের ঘটনায় সেটা প্রমাণ হয়ে যায়।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই সদস্য বলেন, গত এক সপ্তাহ যাবৎ সারা বাংলাদেশ যেখানে ক্যাসিনো নিয়ে তোলপাড় হয়ে গেল, সেখানে সরকার কীভাবে ঘোষণা করে যে, তারা নাকি বিদেশিদের জন্য বাংলাদেশে ক্যাসিনো করবে। আমার অবাক লাগে, কীভাবে এত বড় ঘটনার পরও সরকারের পক্ষ থেকে বুক ফুলিয়ে এমন একটি কথা… আজকে আমি খবরের কাগজে দেখতে পেলাম।

তিনি বলেন, আজকে দায়িত্ব আপনাদের নিতে হবে। আপনারা শেয়ারবাজার লুট করে লাখ লাখ মানুষকে রাস্তার ফকির বানিয়ে দিয়েছেন।

রাজনৈতিক প্রতিহিংসায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মৌলিক অধিকার হরণ করে তাকে সরকার আটকে রেখেছে বলেও অভিযোগ করেন মঈন খান।

তিনি বলেন, জনগণের ভোটে নির্বাচিত নয় বলে এ সরকারের কোনো কাজের জবাবদিহিতা নেই।

শ্রমিক দলের সভাপতি আনোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান, যুগ্ম মহাসচিব মজিবর রহমান সরোয়ার, সহ-শ্রম বিষয়ক সম্পাদক হুমায়ুন ইসলাম, শ্রমিক দলের কার্যকরী সভাপতি সালাহ উদ্দিন সরকার, ঢাকা মহানগর উত্তর শ্রমিক দলের সাধারণ সম্পাদক শাহ আলম রাজা ও শ্রমিক নেতা গাজী বোরহান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

About bdlawnews24

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!

Powered by themekiller.com