সদ্য সংবাদ
Home / কোর্ট প্রাঙ্গণ / বিজয়ের শুভক্ষনের অপেক্ষার প্রহর গুনছে শিক্ষানবিশ আইনজীবীরা!

বিজয়ের শুভক্ষনের অপেক্ষার প্রহর গুনছে শিক্ষানবিশ আইনজীবীরা!

মিতা খাতুন,নিজস্ব প্রতিবেদকঃ-

বাংলাদেশ সম্মিলিত শিক্ষানবিশ আইনজীবী পরিষদের আহ্বায়ক ফজলে রাব্বি স্মরণ এবং প্রধান সমন্বয়ক একে মাহামুদের ডাকে শিক্ষানবিশ আইনজীবীদের আন্দোলনের ১০০তম দিন (১২ অক্টোবর) থেকে ১৪ অক্টোবর পর্যন্ত তিন দিনের পূর্ব নির্ধারিত মহাসমাবেশের পালিত সময় শেষ হলেও কর্তৃপক্ষের কোন সাড়া না পেয়ে বুধবার আইনমন্ত্রীর বাসভবনের সামনে অবস্থান নেয় শিক্ষানবিশরা।

অবস্থানের সময় আইনমন্ত্রী আশ্বাস দেন যে আগামী ৪৮ ঘন্টার মধ্যে বিষয়টার একটা সঠিক সুরাহা করবেন এমনটা জানা যায়।

আরও জানা যায়,বুধবার(১৪ অক্টোবর) রাতে আইনমন্ত্রীর বনানীর বাসায় প্রায় পাঁচ শতাধিক শিক্ষানবিশ আইনজীবী দেখা করেন। সাক্ষাতের সময় আইনমন্ত্রী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে তাদের দাবি মেনে নেয়ার আশ্বাস দেন বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ সম্মিলিত আইনজীবী পরিষদের আহ্বায়ক ফজলে রাব্বি স্বরণ।

এখন ভূক্তভোগী শিক্ষানবিশরা আইনমন্ত্রীর কথায় আশ্বস্ত হয়ে ৪৮ ঘন্টার সময়ের শেষ দিন শুক্রবার মনে করে সেদিনটাই বিজয়ের দিন মনে করছে। তাকিয়ে আছে ১৩ হাজার শিক্ষানবিশ আইনজীবী ও তাঁদের পরিবার আইনমন্ত্রীর মুখে শুনবে রিটেন মওকুফ করে ভাইভার মাধ্যমে আইনজীবী নিয়োগের ঘোষনার।

প্রসঙ্গত,শিক্ষানবিশ আইনজীবীদের আইন পেশায় তালিকাভূক্তির দীর্ঘ পরীক্ষা জট ও বর্তমান উদ্ভুত করোনা ভাইরাস জনিত কারনে তাঁদের পরীক্ষা অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। বার কাউন্সিলের নিয়ম অনুসারে বছরে দুইটি আইনজীবী তালিকাভূক্তির কথা থাকলেও তা সঠিকভাবে পালন হচ্ছে না। এমনকি মহামান্য হাইকোর্টের নির্দেশনা অনুসারে প্রতি ক্যালেন্ডার ইয়ারে একটা পরীক্ষা সমাপ্তের কথা থাকলেও সেটাও সঠিকভাবে প্রতিপালন করা হচ্ছে না। ফলে এ শিক্ষানবিশ আইনজীবীদের নেমে এসেছে দূর্ভোগ। ইতোমধ্যে সরকার PEC,JSC,HSC পরীক্ষা বাতিলের ঘোষনা দিয়েছে করোনা প্রভাব রোধকল্পে। সেহেতু অনুরুপভাবে পেশাগত সনদের ক্ষেত্রেও শিক্ষানবিশরা এমনটা প্রত্যাশা করে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট।

খুলনার শিক্ষানবিশ আইনজীবী মো. রায়হান আলী বলেন,করোনাকালীন সময়ে সরকার এত কিছুই যখন মওকুফ করছেন তখন অবশ্যই মাননীয় আইনমন্ত্রী মহোদয় শুক্রবারের মধ্যে প্রিলিমিনারী পাশকৃত
শিক্ষানবিশদের প্রতি সদয় হয়ে রিটেন মওকুফের ঘোষনা দিয়ে আমাদের প্রতি সুবিচার করবেন।

উল্লেখ্য,এই শিক্ষানবিশ আইনজীবীরা সারা দেশে গেজেটের মাধ্যমে সনদের দাবী সহ অন্যান্য দাবীতে একযোগে গত ৯জুনে দেশের প্রতিটি জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করে ছিলেন। এছাড়া একই দাবীতে গত ৩০ জুন ঢাকা প্রেসক্লাবে প্রেস কনফারেন্স করেন এবং ১৯ জুলাই বার কাউন্সিলের সামনে মহাসমাবেশ করে। বর্তমানে প্রতিদিন আন্দোলন চলে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে।

About bdlawnews

Check Also

পাপুলের স্ত্রী এমপি সেলিনা ইসলাম ও মেয়েকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ

কুয়েতে গ্রেফতার সংসদ সদস্য কাজী শহিদ ইসলাম পাপুলের স্ত্রী ও তার মেয়েকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দিয়েছেন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!

Powered by themekiller.com