এর আগে গত মাসের শুরুতে প্যারিসের উপকন্ঠে স্যামুয়েল প্যাটি নামে এক স্কুল শিক্ষককে হত্যা করা হয়। তিনি ইসলামের নবীর বিতর্কিত ব্যঙ্গচিত্র ক্লাসে তার ছাত্রদের সামনে প্রদর্শন করেছিলেন। এই হামলার পর প্রেসিডেন্ট ম্যাক্র মন্তব্য করেছিলেন, ফ্রান্স কখনো সহিংসতার কাছে নতি স্বীকার করবে না।

এই ঘটনার জের ধরে ফ্রান্সের সঙ্গে মুসলিম দেশগুলোর সম্পর্কে উত্তেজনা তৈরি হয়েছিল। বাংলাদেশসহ কিছু দেশে প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রঁর কুশপুত্তলিকা দাহ করা হয়। তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রেজেপ তাইয়েপ এরদোয়ান মিস্টার ম্যাক্রঁর মানসিক স্বাস্থ্য সম্পর্কে প্রশ্ন তোলেন। এরপর প্রেসিডেন্ট এরদোয়ানের সঙ্গে প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রঁর বাকযুদ্ধ শুরু হয়ে যায়।

– বিবিসি