সদ্য সংবাদ
Home / আন্তর্জাতিক / ইরানকে পারমাণবিক চুক্তি মেনে চলার আহ্বান ইইউর

ইরানকে পারমাণবিক চুক্তি মেনে চলার আহ্বান ইইউর

পারমাণবিক চুক্তি থেকে সরে আসতে ইরানের চতুর্থ দফা পদক্ষেপে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ)। সোমবার ব্রাসেলসে ইইউর পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের বৈঠকের পর এর পররাষ্ট্র নীতিবিষয়ক প্রধান কর্মকর্তা ফেডেরিকা মোগেরিনি এই উদ্বেগ প্রকাশ করেন। এ সময় তিনি ইরানকে ২০১৫ সালের ওই চুক্তি মেনে চলারও আহ্বান জানান।

২০১৫ সালের জুনে ভিয়েনায় নিরাপত্তা পরিষদের পাঁচ সদস্য দেশ যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, ফ্রান্স, রাশিয়া, চীন (পি-ফাইভ) ও জার্মানি (ওয়ান) ইরানের সঙ্গে পরমাণু চুক্তি স্বাক্ষর করে। ওবামা আমলে স্বাক্ষরিত এই চুক্তিকে ‘ক্ষয়িষ্ণু ও পচনশীল’ আখ্যা দিয়ে ২০১৮ সালের মে মাসে তা থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আর নভেম্বর থেকে তেহরানের ওপর নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহাল শুরু করে ওয়াশিংটন। এর পর থেকে ইরান তাদের প্রতিশ্রুতি পর্যায়ক্রমে হ্রাস করছে। সম্প্রতি চতুর্থ দফা পদক্ষেপ নিয়েছে তেহরান। এতে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে ইইউ, ফ্রান্স, ব্রিটেন ও জার্মানি। মোগেরিনি বলেন, ‘ইরান তার ফোরদু স্থাপনায় ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধ করার যে পদক্ষেপ নিয়েছে তাতে মনে হচ্ছে দেশটি পরমাণু সমঝোতা থেকে বেরিয়ে যেতে চায়, যা গভীর উদ্বেগের বিষয়।’

তিনি আরো বলেন, ইউরোপ এ ব্যাপারে আন্তর্জাতিক আণবিক শক্তি সংস্থা বা আইএইএ’র রিপোর্টের অপেক্ষা করছে। ওই রিপোর্ট পাওয়ার পর পরমাণু সমঝোতায় স্বাক্ষরকারী তিন ইউরোপীয় দেশ ফ্রান্স, ব্রিটেন ও জার্মানি এবং ইইউ তাদের প্রতিক্রিয়া জানাবে। এ দিকে লুক্সেমবার্গের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন অ্যাসেল বোর্ন ইরানের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের একতরফা নিষেধাজ্ঞার তীব্র সমালোচনা করে বলেছেন, ইরান সম্পর্কে আইএইএ’র রিপোর্ট হাতে পাওয়ার আগে এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করা ঠিক হবে না।

ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণের অভিযোগ জাতিসঙ্ঘের

এ দিকে ইরানের বিরুদ্ধে এবার নিজেদের ভূগর্ভস্থ পরমাণু স্থাপনা ফোরদুতে ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণ কর্মসূচি চালুর অভিযোগ তুলেছে জাতিসঙ্ঘ। সোমবার সংস্থাটির আওতাধীন আন্তর্জাতিক পরমাণু শক্তি সংগঠনের (আইএইএ) প্রকাশিত এক রিপোর্টে অভিযোগটি তোলা হয়।

আইএইএ বলেছে, গত ৯ নভেম্বর থেকে ইরান নিজেদের ভূগর্ভস্থ পরমাণু স্থাপনা ফোরদুতে পুনরায় ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণ শুরু করেছে। যে কারণে তাদের সমৃদ্ধ ইউরেনিয়ামের মজুদ বেড়েই চলেছে। তেহরানের এই কর্মসূচি পশ্চিমা দেশগুলোর সঙ্গে স্বাক্ষরিত পরমাণু চুক্তি সরাসরি লঙ্ঘন করছে। বিশ্লেষকদের মতে, আইএইএ থেকে করা অভিযোগটির পর ইরানের ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণ সংক্রান্ত দাবির সত্যতা পাওয়া গেল। সম্প্রতি প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি জানিয়েছিলেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র পারমাণবিক চুক্তি থেকে সরে যাওয়ায় তারা এক রকম বাধ্য হয়েই টানা চতুর্থ দফায় সমঝোতাটি ভেঙেছে। তাই এই চুক্তির পূর্ণাঙ্গ বাস্তবায়ন না হলে ধীরে ধীরে ওই সমঝোতাকে প্রত্যাহার করা হবে।

জাতিসঙ্ঘের আওতাধীন আন্তর্জাতিক পরমাণু শক্তি সংস্থার মুখপাত্র মোগেরিনি বলেছেন, ‘ইরান তাদের ফোরদু স্থাপনায় ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধ করে যাচ্ছে। যা দেখে মনে হচ্ছে দেশটি ধাপে ধাপে পরমাণু সমঝোতা থেকে বেরিয়ে যেতে চাইছে, যা আমাদের কাছে গভীর উদ্বেগের একটি বিষয়।’ তিনি আরো বলেন, ‘ইউরোপ বিষয়টি নিয়ে আন্তর্জাতিক আণবিক শক্তি সংস্থা (আইএইএ) থেকে পাঠানো প্রতিবেদনের অপেক্ষায় আছে। যা হাতে পাওয়ার পরই পরমাণু সমঝোতায় স্বাক্ষরকারী ইউরোপীয় তিন দেশ ব্রিটেন, ফ্রান্স এবং জার্মানি তাদের প্রতিক্রিয়া জানাবে।’

About bdlawnews24

Check Also

বাহরাইনের প্রধানমন্ত্রীর মৃত্যুতে কাল দেশে একদিনের শোক

বাহরাইনের প্রধানমন্ত্রী শেখ খলিফা বিন সালমান আল খলিফার মৃত্যুতে আগামীকাল মঙ্গলবার একদিনের রাষ্ট্রীয় শোক পালন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Powered by themekiller.com