সদ্য সংবাদ
Home / অর্থনীতি / অবিক্রিত পণ্য দান করবে অ্যামাজন

অবিক্রিত পণ্য দান করবে অ্যামাজন

অবিক্রিত পণ্য দাতব্য সংস্থায় দান করার ঘোষণা দিয়েছে মার্কিন ই-কমার্স জায়ান্ট অ্যামাজন।

ফুলফুলমিন্ট বাই অ্যামাজন ডোনেশনস নামে এই প্রকল্প চালু করা হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র এবং যুক্তরাজ্যে অ্যামাজনের গুদামে যেসব বিক্রেতা তাদের পণ্য রাখেন তাদের জন্যই আনা হয়েছে এই প্রকল্প– খবর সিএনবিসি’র।

চলতি বছরের ১ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হবে এই প্রকল্প। কোনো বিক্রেতা যখনই তাদের অবিক্রিত পণ্য নষ্ট করে ফেলার সিদ্ধান্ত নেবেন তখনই তাদের এসব পণ্য দানের তালিকায় তোলা হবে। বিক্রেতা চাইলে এই প্রকল্প থেকে বেরও হয়ে আসতে পারবেন।

বুধবার বিকালেই এক ব্লগ পোস্টে এই প্রকল্পের ঘোষণা দিয়েছে অ্যামাজন। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের গুড৩৬০ এবং যুক্তরাজ্যের নিউলাইফ এবং বার্নার্ডোর মতো অলাভজনক সংস্থাগুলোর মাধ্যমে পণ্য দান করা হবে বলে জানানো হয়েছে।

অ্যামাজনের গুদামে যেসব পণ্য অবিক্রিত রয়েছে এবং নষ্ট করাটা জরুরী সেগুলো এই প্রকল্পের মাধ্যমে দান করা হবে। এতে গুদামে খালি জায়গাও বাড়বে। ফলে উচ্ছিষ্ট পণ্যগুলো কোনো কাজ আসবে বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

সাম্প্রতিক এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে নিয়মিতভাবে গুদামের অবিক্রিত পণ্য ধ্বংস করে থাকে অ্যামাজন। ফরাসী টিভি’র পক্ষ থেকে বলা হয় আগের বছর শুধু ফ্রান্সেই ৩০ লাখ পণ্য বিনষ্ট করেছে ই-কমার্স জায়ান্ট মার্কিন প্রতিষ্ঠানটি। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে অবিক্রিত পণ্যের পরিমাণ অন্যান্য দেশের চেয়ে আরও বেশি হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

অ্যামাজনের এই প্রকল্পের মাধ্যমে অবিক্রিত পণ্য ফেরত নেওয়ার চেয়ে খরচ কমবে তৃতীয় পক্ষের বিক্রেতাদের। বিক্রি হয়নি এমন পণ্য ফেরত বিক্রেতা ফেরত নিতে চাইলে অ্যামাজনকে দিতে হয় ৫০ সেন্ট। আর এই পণ্য ধ্বংস করতে দিতে হয় ১৫ সেন্ট।

About admin

Check Also

আজ থেকে নতুন অর্থবছর শুরু

আজ (১ জুলাই) থেকে নতুন অর্থবছর (২০২০-২০২১) শুরু হয়েছে। নতুন বাজেটের আকার পাঁচ লাখ ৬৮ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Powered by themekiller.com