সদ্য সংবাদ
Home / জাতীয় / মুজিববর্ষে ই-পাসপোর্ট পাওয়ায় সবাইকে অভিনন্দন -এটি মুজিববর্ষের উপহার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

মুজিববর্ষে ই-পাসপোর্ট পাওয়ায় সবাইকে অভিনন্দন -এটি মুজিববর্ষের উপহার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, মুজিববর্ষে ই-পাসপোর্ট পাওয়ায় সবাইকে অভিনন্দন। এটি মুজিববর্ষের উপহার। ই-পাসপোর্টে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি আরো উন্নত হবে। প্রবাসিরা ও বিদেশে যারা যাচ্ছে তারা আর হয়রানির শিকার হবে না। বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে বাংলাদেশকে এগিয়ে নিতে চাই।

বুধবার (২২ জানুয়ারি) সকাল সোয়া ১১টার দিকে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ই-পাসপোর্ট কার্যক্রমের উদ্বোধনী বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ডিজিটাল জগতে আমরা আরো এক ধাপ এগিয়েছি। এখন আর গলাকাটা পাসপোর্ট হবে না। ১১৮টি দেশে ই-পাসপোর্ট রয়েছে। ই-পাসপোর্টে আমাদের দেশ ১১৯তম। স্বল্প সময়ের মধ্যে ই-পাসপোর্ট এর কার্যক্রম সম্পন্ন এবং একেক বার নতুন প্রযুক্তি উপহার দেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের অভিনন্দন জানাচ্ছি।

তিনি বলেন, প্রথমবার যখন ক্ষমতায় এসছি তখন দেশকে দেশকে খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ করেছি। সাবমেরিন ক্যাবল সাড়ে তিন হাজারে পৌছেঁছি। দেশকে দারিদ্রমুক্ত করবো। তৃনমূল পর্যন্ত আমাদের উন্নয়নের সুবিধা দেশের মানুষ ভোগ করবে।  বাংলাদেশ কীভাবে এগাবে তার পরিকল্পনা আমরা নিয়েছি। ২১০০ সালে মানুষ কীভাবে থাকবে সেই পরিকল্পনা অর্থাৎ ডেল্টা প্লান বাস্তবায়নের কাজ করছি।

তিনি আরো বলেন, নির্বাচনী ইশতেহারে আমরা ঘোষণা দিয়েছিলাম বাংলাদেশ হবে ডিজিটাল বাংলাদেশ। কম্পিউটার শিক্ষা ডিজিটাল ডিভাইস ব্যবহার বাংলাদেশের মানুষ যেন করতে পারে। ৯৬ সালে ক্ষমতায় এসে এটার উদ্যোগ নিয়েছিলাম। কিন্তু সম্পন্ন করতে পারিনি। ২০০৮ সালে ক্ষমতায় এসে সেই উদ্যোক্ত টা আবার নেই। বিশ্ববিদ্যালয়সহ সকল অফিস-আদালত, স্কুল-কলেজ সকল ক্ষেত্রে এই প্রযুক্তি যেন ব্যবহার করা হয় তার জন্য শিক্ষার ব্যবস্থা করি, সমস্ত ট্যাক্স প্রত্যাহার করি। কম্পিউটার ল্যাপটপ বা তার জন্য জনগণের কাছে সহজলভ্য হয়। আমাদের ছেলেমেয়েরা যেন সহজে কম্পিউটার শিখতে পারে সে ব্যবস্থাও নিই। ফলে দেশে একটা ডিজিটাল বিপ্লব সাধিত হয়েছে।

শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশ যেন একটা আধুনিক প্রযুক্তি সম্পন্ন জাতি হিসেবে গড়ে উঠতে পারে সে লক্ষ্যে আমরা কাজ করছি। ইতোমধ্যে দেশের বিভিন্ন গ্রামে সাড়ে তিন হাজার সাবমেরিন আমরা পৌঁছে দিয়েছি। বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ উৎক্ষেপণ করেছি। ইন্টারনেট সেবা মানুষের ঘরে ঘরে পৌঁছে দিচ্ছি। আমরা চাই যে দেশ এগিয়ে যাক, সে লক্ষ্যে যখনই যে প্রযুক্তি আসে তা বাস্তবায়নের পদক্ষেপ আমরা নেই।

উদ্বোধন শেষে প্রধানমন্ত্রীকে তার নিজের ই-পাসপোর্টটি হাতে তুলে দেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান কামাল।  অনুষ্ঠানে জার্মান সরকার থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে শুভেচ্ছা স্বারক প্রদাণ করা হয়।

About bdlawnews

Check Also

মানবতার অনন্য নজির জননেতা মঞ্জুরুল আলম মোহন এর ‘সেবা’

এস আই সুমন,স্টাফ রিপোর্টারঃ বুধবার (২৮ এপ্রিল) সকাল ১১টায় বগুড়া পৌরসভার ১৯নং ওয়ার্ডের মানিকচক এবং …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!

Powered by themekiller.com