Home / খেলাধুলা / যা বললেন প্রধান নির্বাচক

যা বললেন প্রধান নির্বাচক

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে হোম সিরিজের জন্য বাংলাদেশ জাতীয় দল ঘোষণা করা হয়েছে রোববার। দলে ফিরেছেন পেসার মুস্তাফিজুর রহমান ও তাসকিন আহমেদ। মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ স্কোয়াডে জায়গা পাননি। দলে ঢুকেছেন ইয়াসির আলী রাব্বি। এ ছাড়া পাকিস্তান সফরে দলে থাকা পেসার রুবেল হোসেন ও আল আমিনও বাদ পড়েছেন। চমক হিসেবে দলে ঢুকেছেন বিপিএলে আলো ছড়ানো পেসার হাসান মাহমুদ। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজের দলে এমন রদবদল নিয়ে কথা বলেছেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের প্রধান নির্বাচন মিনহাজুল আবেদীন নান্নু।

মুস্তাফিজুর রহমানকে আবারও স্কোয়াডে অন্তর্ভুক্ত করার কারণ ব্যাখ্যা করে তিনি বলেন, ‘এখন আমরা চিন্তা করছি, বিসিএলে মুস্তাফিজ যেভাবে ফিরে এসেছে, অবশ্যই তাকে লাল বলে বিবেচনা করা যায়। আজ [রোববার] সকালেই কোচের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে, তখনই আমরা তাকে অন্তর্ভুক্ত করেছি। মুস্তাফিজের পরপর দুটো বিসিএল ম্যাচ দেখেছি এবং সে আগের মতোই বল করেছে।’

২৮ মাস পর দলে জায়গা পেয়েছেন আরেক পেসার তাসকিন। তারে ফেরানো প্রসঙ্গে নান্নু বলেন, ‘টেস্ট ক্রিকেটে আমরা ম্যানেজমেন্টের সঙ্গে আলোচনা করে এখন চাচ্ছি যে, যাদের গতি ১৪০-এর কাছাকাছি, তাদের টেস্টে অন্তর্ভুক্ত করা।’

টেস্টে মিডল অর্ডারে মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের জায়গায় ইয়াসির আলী রাব্বিকে বিবেচনা করা হচ্ছে কি-না এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘এটা রিয়াদের বদলি আমরা বলতে পারি না। ইয়াসির রাব্বি আমাদের এইচপির প্লেয়ার। সে এনসিএলে ভালো খেলছে, গত ম্যাচেও ভালো একটা হানড্রেড করেছে। ওকে এই টিম ম্যানেজমেন্টের অধীনে আরও ডেভেলপ করার সুযোগ দেবো।’

পেসার আল-আমিনের বাদ পড়া প্রসঙ্গে প্রধান নির্বাচক বলেন, ‘আল-আমিন কিন্তু পাকিস্তান সিরিজের আগেই ইনজুরিতে পড়েছে। গুরুতর কোনো ইনজুরি না, কিন্তু যে ইনজুরি এতে লংগার ভার্সন ম্যাচে পুরোপুরি বল করা ওর জন্য অসুবিধার হতো। আপনি খেলা শুরু করে যদি এক-দুই ওভারের মধ্যে অফ হয়ে যান, চারজন বোলার নিয়ে খেলে একজন পুরো অফ হয়ে গেলে লংগার ভার্সনে ডিফিকাল্ট। সে কারণে ফিটনেস চিন্তা করে ওকে ওয়ানডের জন্য রাখছি।’

আরেক পেসার রুবেল হোসেনের বাদ পড়ার কারণ ব্যাখ্যা করে তিনি বলেন, ‘ওকে ব্যাকআপ বোলার হিসেবে নিয়েছিলাম। তারপর পাকিস্তানে গিয়ে আল-আমিনের ইনজুরির জন্য ওকে ম্যাচে নিয়েছি। আমাদের ম্যানেজমেন্টের সঙ্গে যে আলোচনা হয়েছে, টিম ম্যানেজমেন্ট ওকে চাচ্ছে পুরোপুরি রেডি হয়ে ব্যাক করতে পারে।’

তরুণ পেসার হাসান মাহমুদকে দলে অন্তর্ভুক্ত করা প্রসঙ্গে নান্নু বলেন, ‘আমাদের জোরে বল করা বোলারের অভাব ছিল, যে ১৪০-এর কাছাকাছি ধারাবাহিক বল করতে পারে। সে হিসেবে ওর মধ্যে আমরা এই ট্যালেন্টটা দেখেছি। দুর্ভাগ্যবশত মাঝখানে সে কিছুটা লাইনচ্যুত ছিল। আবার কামব্যাক করেছে, যার কারণে সিস্টেমের মধ্যে আমরা ওকে নিয়েছি।’

About bdlawnews

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!

Powered by themekiller.com